Categories
বিনোদন

অবশেষে প্রেম করা নিয়ে যা জানালেন সেই ছোট্ট দীঘি

‘চাচ্চু’, ‘দাদী মা’, ‘পাঁচ টাকার প্রেম’সহ একের পর এক হিট ছবিতে শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় করে দর্শকদের নজর কাড়েন প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। মাঝে প্রায় আট বছরের মতো ক্যামেরার বাহিরে তিনি। এসময় তার কাছে অনেক ছবি অফার আসলেও ফিরিয়ে দিয়ে দিয়েছিলেন।

 

সম্প্রতি ‘তুমি আছো তুমি নেই’ নামে নতুন একটি ছবিতে দীঘি নায়িকা হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। প্রখ্যাত পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু এটি পরিচালনো করেছেন। এ ছবিটিতেই প্রথমে নায়ক হিসেবে চূড়ান্ত ছিলেন বাপ্পি চৌধুরী। এরপরে বাপ্পি ছেড়ে দেয়ার পর ছবিটিতে চুক্তিব’দ্ধ হন সাইমন কিন্তু তারপরে আবার সেই ছবিতে নায়ক হিসেবে নাম আসে শান্ত খান।

 

এরই মধ্যে গু’ঞ্জন শোনা যাচ্ছে, প্রেমে পড়েছেন দীঘি। তবে প্রেমের এই গু’ঞ্জনকে পা’ত্তা দিচ্ছেন না দীঘি। ক্যারিয়ার ও পড়াশোনা নিয়েই তার ভাবনা। ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’ নামের এক ছবিতে নায়িকা হিসেবে নাম লেখান দীঘি।

 

শোনা যাচ্ছিল, বড় পর্দায় পা রাখার পর প্রেম করছেন তিনি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে দীঘি বলেন, নায়িকাদের প্রেমের গু’ঞ্জন ওঠাই স্বাভাবিক। আমি মাত্র ছবিতে অভিনয় শুরু করেছি। ভেবেছিলাম, এসব গু’জব উঠতে আরো এক বছর লাগবে। এসব গু’জবে আমি কান দিই না। যখন প্রেম হবে, তখন এমনিই সবাই জানবে। মাত্র ক্যারিয়ার শুরু করেছি। কিছুই এখনো গোছাতে পারিনি। প্রেম করব কখন? প্রেম করার সময় নেই।

 

অন্য একটি প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আরেকটি গু’জব শুনেছি, আমি শাকিব খানের নায়িকা হতে যাচ্ছি। আমার নামে আর কোনো গু’জব শুনিনি। ১৫ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ‘তুমি আছ, তুমি নেই’ ছবির শুটিং। এই ছবিতে প্রথমে চুক্তিব’দ্ধ হন বাপ্পী চৌধুরী। পরে তার জায়গায় যুক্ত হন সায়মন। এখন শোনা যাচ্ছে, এই অভিনেতাও থাকছেন না ছবিটিতে। বারবার এভাবে নায়ক বদল হওয়ায় কিছুটা দ্বি’ধায় পড়ে গেছেন দীঘি।

 

তিনি বলেন, একটা ছবি করতে গেলে সহশিল্পীর সঙ্গে সি’ঙ্ক করতে হয়। চিত্রনাট্য নিয়ে তার সঙ্গে বারবার কথা বলে চরিত্র অনুযায়ী প্রস্তুতি নিতে হয়। শুটিংয়ের আগে অভিনয়ের জড়তা কা’টাতে হয়। কিন্তু নায়ক বদলে যাওয়ায় সেই প্র’স্তুতি নিতে পারছি না। যাকেই সহশিল্পী ভাবছি, কিছুদিন পর শুনছি সে নেই। এখন কাকে নিয়ে শুটিং শুরু হচ্ছে, সেটাও জানি না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *