Categories
বিনোদন

কঙ্গনার বিপদ যেকোনো সময় !

বলিউডের বিতর্কিত অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত যে কোনো মুহূর্তে গ্রেফতার হতে পারেন। কর্ণাটকে ভারতের কৃষকদের ‘খামার বিল’ নিয়ে টুইটারে কটুক্তি করার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

গত সেপ্টেম্বরে কঙ্গনার সেই টুইট ক্ষুব্ধ করে তুলেছে অনেককেই। অনেকেই কঙ্গনার শাস্তিও দাবি করেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

ভারতের সংবাদ সংস্থা এএনআই জানায়, কৃষকদের কটাক্ষ করায় তার নামে মামলাও করেছেন একজন। কর্ণাটকের একটি আদালত তার সেই টুইটের সূত্র ধরে অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে সেই মামলার জেরেই কঙ্গনাকে গ্রেফতার করার নির্দেশ দিয়েছেন।

উক্ত টুইটটিতে কঙ্গনা সম্প্রতি ভারতে পাস হওয়া ‘খামার বিল’ এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদকারী কৃষকদের ‘সন্ত্রাসী’ বলে অভিহিত করেছিলেন।

খামার বিল নিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদীর একটি টুইটের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে কঙ্গনা গত ২১ সেপ্টেম্বর এক টুইটে লেখেন, ‘প্রধানমন্ত্রী, যদি কেউ ঘুমিয়ে থাকেন তবে তাকে ঘুম থেকে জাগানো যায়। যদি কেউ বুঝতে না পারে তবে তাকে ব্যাখা-বিশ্লেষণ দিয়ে বুঝানো যায়। তবে কেউ যদি ঘুমের অভিনয় করে শুয়ে থাকে কিংবা না বোঝার অভিনয় করে তখন আপনি তাকে কিভাবে বুঝাবেন? এরা আসলে সকলেই জঙ্গি সন্ত্রাসীর মতো। সিএএ-এর কারণে এদের কাউকেই নাগরিকত্ব হারাতে হয়নি। তবে তারা এখানে এসেছে রক্তপাত করার লক্ষ্যে।’

তার এই টুইটের পরেই কৃষক আন্দোলনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলেই বেশ ক্ষুব্ধ হয়ে পড়ে। তবে কঙ্গনা দাবি করেন যে, টুইটটি তার নিজের না। তিনি বলেন, ‘আমি কখনই কৃষকদের জঙ্গি বলিনি। যদি কেউ প্রমাণ করতে পারে যে আমি কৃষকদের জঙ্গি বলেছি তবে আমি ক্ষমা চাইব এবং চিরতরে টুইটার ছেড়ে দেব।’

প্রসঙ্গত, কঙ্গনার বিরুদ্ধে এত দিনেও কেন মামলা দায়ের হয়নি এ কারণে বেশ সমালোচনার ঝড় উঠেছিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। তবে শুধু কৃষক নয়। এর আগেও সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুসহ নানা বিষয় নিয়ে অপ্রাসঙ্গিক বিস্ফোরক মন্তব্য করতে দেখা গেছে এই বলিউড অভিনেত্রীকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *