Categories
জাতীয়

রায়ের প্রতিক্রিয়ায় হাসতে হাসতে যা বললেন রিফাত ফরাজি

বরগুনায় রিফাত হ”ত্যা মা’মলা’য় ফাঁ’সির দ’ণ্ডপ্রা’প্ত আ’সা’মি মো. রাকিবুল হাসান ওরফে রিফাত ফরাজী রা’য়ের পর হাসতে হাসতে আদালত থেকে বেরিয়ে প্রিজনভ্যানে ওঠেন। এ সময় তিনি বলেন, আমরা সব আল্লাহর ওপর ছেড়ে দিলাম। অ’তী’তে যা হয়েছে তা আল্লাহ করেছেন আর ভবিষ্যতে যা হবে সেটাও আল্লাহই করবেন।

 

বুধবার দুপুর ২টা ৫৫ মিনিটে আ’দালত থেকে আসা’মিদের কা’রাগা’রে নেয়ার সময় প্রিজনভ্যানে ওঠার মুহূর্তে এসব কথা বলেন রিফাত ফরাজি। তবে আশপাশের শ’ব্দের কারণে তার বাকি বক্ত’ব্য স্প’ষ্ট শো’না যায়নি। এ সময় শুধু আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকন ছাড়া বাকি সা’জাপ্রা’প্তরা স্বা’ভাবিক ছিলেন।

 

বহুল আলোচিত বরগুনার রিফাত শরীফ হ”ত্যা মা’মলা’য় রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিসহ ছয়জনের ফাঁ’সির আদেশ দে’ন আ’দালত। একই মা’মলায় চা’রজনকে খালা’স দেয়া হয়েছে। এছাড়া প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জ’রিমা’না করেছেন আদালত।

 

বুধবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে এ মা’ম’লার রা’য় ঘো’ষণা করেন বরগুনার জে’লা ও দায়’রা জজ আ’দালতের বিচারক মো. আছাদুজ্জামান। ফাঁ’সির দ”ণ্ডপ্রা”প্তরা হলেন মো. রাকিবুল হাসান ওরফে রিফাত ফরাজী (২৩), আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকন (২১), মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত (১৯), রেজোয়ান আলী খান হৃদয় ওরফে টিকটক হৃদয় (২২), মো. হাসান (১৯) ও আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি (১৯)।

 

এছাড়া এ মামলায় চার আসা’মিকে বেক’সুর খা’লা’স দেয়া হয়েছে। খালা’সপ্রা’প্তরা হলেন- মো. মুসা (২২), রাফিউল ইসলাম রাব্বি (২০), মো. সাগর (১৯) ও কামরুল হাসান সায়মুন (২১)।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *