Categories
জাতীয়

হু হু করে কমছে সোনার দাম!

দুই দিনের ব্যবধানে বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম কমেছে ৪৭ ডলার; অর্থাৎ প্রতি ভরিতে কমেছে প্রায় সাড়ে ১৯ ডলার। 

আন্তর্জাতিক বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে প্রতি আউন্স সোনা বিক্রি হচ্ছে ১৯০২.২৭ ডলারে; যা আগের দিনের তুলনায় ১০.৪৯ ডলার কম। সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) সোনার আন্তর্জাতিক বাজারে লেনদেন শেষ হয়েছিল ১৯১২.৭৬ ডলারে। এদিন, বেশ বড় পতনের মুখে পড়েছিল সোনার দাম। একদিনেই প্রতি আউন্সে ৩৭.২৪ ডলার দাম কমেছিল সোনার দাম। অর্থাৎ দেড় দিনেই ৪৭ ডলার কমেছে প্রতি আউন্স সোনার দাম।

তবে, রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) কিছুটা উর্ধমুখী প্রবণতা ছিল সোনার বাজারে। এদিন, বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স সোনা বিক্রি হয় ১৯৫৩.১৬ ডলারে; আগের দিনে তুলনায় যা ৩ ডলার বেশি।

শনিবারও (১৯ সেপ্টেম্বর) উর্ধমুখী প্রবণতাতেই লেনদেন হয় সোনা। বিশ্ববাজারে ১৯৫০.৩৯ ডলারে বিক্রি হতে দেখা যায় প্রতি আউন্স সোনা। যা আগের দিনের তুলনায় সামান্য বেশি (০.৩৯ ডলার)।

এর আগে (১৮ সেপ্টেম্বর) প্রতি আউন্স সোনার সর্বশেষ দাম ছিল ১৯৫০ ডলার। এদিন, বাজারে প্রতি আউন্সে দাম বাড়ে ৪.৯৪ ডলার। ১৭ সেপ্টেম্বর প্রতি আউন্স সোনার সবশেষ দাম ছিল ১৯৪৫.০৬ ডলার। এদিন, সোনার দামের বেশ বড় ধরনের পতন হয়। আগের দিনের তুলনায় ১৩.৬৯ ডলার কমে এক আউন্স সোনার দাম। ১৬ সেপ্টেম্বর ১৯৫৮.৭৪ ডলারে থামে সোনার দাম। দিন শেষ সোনার দাম বাড়ে ৩.১৫ ডলার। এর আগের (মঙ্গলবার) দিন হাতবদল হতে হতে সোনার দাম কমে ১.১৩ ডলার। দিনশেষ হয় ১৯৫৫.৬০ ডলারে। ১৪ সেপ্টেম্বর (সোমবার) হাতবদল শেষে প্রতি আউন্সের সোনার দাম দাঁড়ায় ১৯৫৬.৭২ ডলারে। যা এর আগের দিনের সবশেষ দামের চেয়ে ১৫.২২ ডলার বেশি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *