Categories
আন্তর্জাতিক

ক’রোনা মোকাবিলায় পাকিস্তানকে দেখে শিখুন: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

ক’রোনা মোকাবিলায় পাকিস্তানকে দেখে শিখুন: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

 

ছবিকালেকশন
মাত্র ছয় মাসে ক’রোনা ভাইরাসকে নিয়ন্ত্রণে এনে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে পাকিস্তান। এবার, কীভাবে ক’রোনা থেকে বাঁচতে হয় তা ইসলামাবাদকে দেখে বাকিদের শিখতে পরামর্শ দিচ্ছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস আধানম গেব্রিয়েসুস।

প্রথমদিকে, পাকিস্তানে লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে ক’রোনার সংক্রমণ। আর তা নিয়ে ইমরান খান প্রশাসনকে নিয়ে তুমুল সমালোচনা করেছিল সে দেশের বাসিন্দারাই। তাদের অভিযোগ, স্বাস্থ্য খাতে সরকারি বরাদ্দ নগণ্য। আবার অর্থনীতির দোহাই দিয়ে তড়িঘড়ি লকডাউনও তুলে দিয়েছে ইমরান প্রশাসন।

তারপরেও গত কয়েক সপ্তাহ ধরে পাকিস্তানে ক’রোনা সংক্রমণের হার অনেকটাই কমেছে। কমেছে দৈনিক মৃ’ত্যুর হার। পরিসংখ্যান বলছে, দৈনিক মৃ’ত্যুর সংখ্যা ১০-এরও নিচে রয়েছে এখন। সে দেশে ক’রোনা আক্রান্তের সংখ্যা মোটে তিন লক্ষ। আর মৃ’তের সংখ্যা সাত হাজার ছুঁইছুঁই।

এই পরিস্থিতি অবাক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে। রীতিমতো সাংবাদিক সম্মেলন করে করোনা নিয়ন্ত্রণে পাকিস্তানের ভূমিকার কথা বললেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান। তিনি বলেন, পোলিও মোকাবিলার জন্য গণস্বাস্থ্য ব্যবস্থার পরিকাঠামো বহু বছর ধরে পাকিস্তানে গড়ে উঠেছে। সেই পরিকাঠামোই মহামারী সংক্রমণের প্রতিরোধে কাজে লেগেছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বলেন, বাড়ি-বাড়ি ঘুরে পোলিওর টিকা দেওয়ায় দক্ষ স্বাস্থ্যকর্মীরা এই যুদ্ধে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেছেন। স্বাস্থ্যকর্মীদের নজরদারি, কনট্র্যাক্ট ট্রেসিং এবং যত্ন নেওয়ার কাজে ব্যবহার করায় সংক্রমণের মাত্রা কমেছে।

ক’রোনা মোকাবিলায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যে দেশগুলির প্রশংসা করেছে, সেই তালিকায় আবার ভারতের নাম নেই।

ইতিমধ্যে, টুইট করে এই আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রাক্তন স্পেশাল অ্যাসিস্ট্যান্ট ডা. জাফর মির্জা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার স্বীকৃতি পাকিস্তানের মানুষের কাছে বড় সম্মান বলে মনে করেন তিনি।
সূত্র ইনসাফ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *