Categories
জাতীয়

স্বামীর সঙ্গে যেসব কথা বলেছে ইউএনও ওয়াহিদা

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে সরকারি বাসভবনে দুর্বৃত্তদের হা’মলায় গুরুতর আ’হত ইউএনও ওয়াহিদা খানমের জ্ঞান ফিরেছে। তিনি এখন কথা বলতে পারছেন। প্রাথমিকভাবে তার স্মৃ’তিও ফিরেছে। জ্ঞান ফেরার পর ওয়াহিদা খানম ইউএনও স্বামীর সঙ্গে কথা বলেছেন।

 

হা’মলার একদিন পর শুক্রবার ঢাকার নিউরো সাইন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে কথা বলেন।ওয়াহিদা খানমের স্বামী রংপুরের পীরগঞ্জের ইউএনও মো মেজবাউল হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 

ওয়াহিদা খানমের বড়ভাই শেখ ফরিদ উদ্দীন জানান, শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টায় ওয়াহিদা খানম হাসপাতা’লে তার স্বামী মেসবাউল হোসেনের সাথে কথা বলেছেন। জ্ঞান ফিরেই ওয়াহিদা খানম তার স্বামীকে জিজ্ঞাসা করেন, কেমন আছো? এসময় স্বামী মেসবাউল হোসেন তার স্ত্রী’র স্মৃ’তি ঠিক আছে কিনা পরীক্ষা করার জন্য জিজ্ঞাসা করেন, ‘আমি কে?’

 

উত্তরে হাসপাতা’লের বেডে শুয়ে ওয়াহিদা খানম বলেন, ‘আদিয়াতের বাবা।’বড়ভাই শেখ ফরিদ বলেন, বোন কথা বলতে পেরেছে এতে আল্লাহপাকের কাছে শুকরিয়া আদায় করছি।

 

এ ব্যাপারে ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতা’লের নিউরো ট্রমা বিভাগের প্রধান নিউরোসার্জন এবং গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রধান ডা. মোহাম্ম’দ জাহিদ হোসেন বলেন, আল্লাহর রহমতে এখন পর্যন্ত তার সব প্যারামিটার খুবই ভালো। সিটি স্ক্যানের রিপোর্ট কেমন আসে সেটা নিয়ে দুশ্চিন্তা ছিল। খুবই ভালো খবর। তার সিটি স্ক্যানের শতভাগ ভালো রিপোর্ট এসেছে।

 

তিনি বলেন, জ্ঞান ফেরার পর তার স্বামীর সঙ্গে কথা বলেছেন। বর্তমানে তিনি আইসিইউতে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। সূত্র: যুগান্তর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *