Categories
বিনোদন

মেয়ে আয়রা’কে বু’কের মধ্যে নিয়ে গান গেয়ে ঘুম পা’ড়াচ্ছেন সৃজিত

আই’রা মিথিলার প্রথম পক্ষের মে’য়ে। কিন্তু ১০ বছরের আই’রা তার নতুন বাবারও নয়নের মণি। মে’য়েকে প্রচণ্ড ভালবাসেন সৃজিত। করো’না ভাই’রাসের থাবা, লকডাউনের ভ্রুকুটি , দুই দেশের সী’মান্ত…প্রতিকূলতা… পরিস্থিতি যতই নি’ষ্ঠুর হোক না কেন, ভালবাসার শ’ক্তির কাছে সবই তুচ্ছ… সেটাই আরেকবার প্র’মাণ করেছেন বাংলার পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় ও তাঁর স্ত্রী’, বাংলাদেশের অ’ভিনেত্রী, সমাজকর্মী, আধ্যাপিকা রাফিয়াত রশিদ মিথিলা।

 

সব বাধা-বিপ’ত্তির ঊর্ধে ভালবাসারই জয় হয়েছে… ভালবাসাই মিলিয়ে দিয়েছে সৃজিত-মিথিলাকে। ১৫ অগাস্ট, ভা’রতের স্বাধীনতা দিবসের দিন বাংলাদেশের সী’মান্ত পার করে স্বামীর কাছে ফিরে এসেছেন মিথিলা। নিজেই এই সুখবর সোশ্যাল মি’ডিয়ায় জানিয়েছিলেন সৃজিত। লিখেন, ”১৯৪৭ সালের ১৫ অগাস্ট বহু মানুষ ঘৃ’ণার কারণে সী’মান্ত পার করেছিলেন। ২০২০-র ১৫ অগাস্ট দু’জন মানুষ ভালবাসার জন্য সী’মান্ত পার করলেন।”

 

পো’স্টের সঙ্গে পেট্রাপোল সী’মান্ত পার করে মিথিলা ও মে’য়ে আয়রাকে এ’দেশে নিয়ে আসার বেশ কয়েকটি ছবিও পো’স্ট করেন সৃজিত। আয়রা মিথিলার প্রথম পক্ষের মে’য়ে। কিন্তু বছরের দশেকের আয়রা তার নতুন বাবারও নয়নের মণি। মে’য়েকে প্রচণ্ড ভালবাসেন সৃজিত। লকডাউনে বাবা-মে’য়েতে ভিডিও কল চলত, কিন্তু বাবার বুকের উপর আরামে, নিশ্চিন্তে মুখ গুঁ’জে নেওয়াটা হত না। এখন আর সে সবে বা’ধা নেই।

 

আয়রা’কে ঘুম পাড়িয়ে দিচ্ছেন সৃজিত। সেই ছবিই পো’স্ট করলন পরিচালক মশাই। লিখলেন, ‘‘গান তুমি হও আমা’র মে’য়ের ঘুমিয়ে পড়া মুখ।’’ গতবছর ৬ ডিসেম্বর সাতপাকে বাঁ’ধা পড়েন সৃজিত ও মিথিলা। সুইৎজারল্যান্ডে মধুচ’ন্দ্রিমা সেরে মে’য়ে আই’রাকে নিয়ে বাংলাদেশ যান মিথিলা। পরবর্তী ‘কাকাবাবু’ সিরিজের শ্যুটিং করতে সৃজিতও পাড়ি দেন আফ্রিকা।

 

এরমধ্যেই জা’রি হয়ে যায় ল’কডা’উন। সৃজিত কলকাতা ফিরলেন, কিন্তু দুইয়ের মাঝে কাঁ’টা হয়ে দাঁড়াল ল’কডা’উন, মিথিলা ফিরতে পারলেন না এ’দেশে। দীর্ঘ সময় আলাদাই থাকতে হয় নবদ’ম্পতিকে। অবশেষে ভালবাসারই জয়… ভা’রতের স্বাধীনতা দিবসের দিনই সীমা’ন্ত পেরিয়ে স্বামীর কাছে ফিরে এসেছেন মিথিলা ও আয়রা।-নিউজ১৮।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *