Categories
আন্তর্জাতিক

স্বামী অসুস্থ, চাকরি খুঁজতে গিয়ে ভারতে পাচার বাংলাদেশি তরুণী

স্বামী অসুস্থ, চাকরি খুঁজতে গিয়ে ভারতে পাচার বাংলাদেশি তরুণী

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগানা জেলা থেকে ২৭ বছর বয়সী এক বাংলাদেশি তরুণীকে উদ্ধার করেছে বিএসএফ। ওই তরুণী জানিয়েছেন, চাকরি দেয়ার কথা বলে তাকে ভারতে পাচার করেছে মাদারীপুরের এক দালাল।

বিএসএফকে উদ্ধৃত করে ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, আগস্টের ২৫ তারিখে বিএসএফ এর গোয়েন্দা বিভাগ খবর পায় যে একজন বাংলাদেশি নারী দালালদের পাল্লায় পড়ে অবৈধভাবে সীমান্ত পেরিয়ে সীমান্তবর্তী গানগুলিয়া গ্রামে অবস্থান করছেন। ওই তরুণীর বয়স ২৭ বছরের মতো হবে। বিএসএফ এর হেফাজতে নিয়ে তাকে মুস্তাফাপুরের ব্যুরো অব প্রিজনসে রাখা হয়েছে।

বিএসএফ এর পক্ষ থেকে জানানো হয়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই নারী জানান, তার স্বামীর স্বাস্থ্যগত সমস্যা রয়েছে এবং তিনি অসুস্থ থাকেন। তাদের অর্থনৈতিক অবস্থা শোচনীয়। সম্প্রতি বাংলাদেশের মাদারিপুরের একটি গ্রামের ডালিম নামের এক মানব পাচারকারীর সাথে তার পরিচয় হয়। সেই পাচারকারী তাকে মুম্বাইয়ে কোনো বাড়িতে গৃহপরিচারিকা অথবা হোটেলে কোনো চাকরি পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দেন। আগস্টের ২৩ তারিখে ডালিমের সহায়তায় তিনি বাসযোগে যশোর পৌঁছান। ডালিম তাকে ভারতের বাহারুর মন্ডল নামের আরেক মানব পাচারকারীর মোবাইল দিয়ে দেন। বাহারুলের বাড়ি গাঙ্গুলিয়া গ্রামে।

নারী জানান, ২৪ আগস্ট রাতে বাহারুল মন্ডলের সহায়তায় ডালিম তাকে সীমান্ত পার হওয়ার ব্যবস্থা করে দেন। কোন জায়গা দিয়ে সীমান্ত পার হয়েছেন তা তিনি জানেন না। পরে গাঙ্গুলিয়া গ্রামে পৌঁছানোর পর বাহারুল মন্ডল তার থাকার ব্যবস্থা করেন। ওই রাতে দীর্ঘ পথ একা হেঁটে গাঙ্গুলিয়া পৌঁছান তিনি। বাহারুলের বাড়িতে পৌঁছানোর পর তিনি বাংলাদেশি মুদ্রায় ২০ হাজার টাকা প্রদান করেন। এ টাকা সীমান্ত পার হওয়া এবং মুম্বাইয়ে কাজ পাইয়ে দেয়ার খরচ হিসেবে দেয়া হয়।

বিএসএফ জানায়, এই পাচারের ঘটনায় পাচারকারীদের খুঁজে বের করতে অনুসন্ধার শুরু করেছে বাগদাহ থানা।
সূত্র সময়ের কন্ঠস্বর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *