Categories
জাতীয়

মা-মেয়েকে নি’র্যাত’নকারী সেই চেয়ারম্যানকে গ্রে’ফতার করছে র‌্যাব

কক্সবাজারের চকরিয়ায় নি’র্যা’তি’ত সেই মা-মেয়ে ও ছেলেসহ পাঁচজনকে গরু চু’রির মাম’লায় কা’রাগারে পা’ঠায় পুলিশ।এ ঘটনায় পুলিশের বি’রু’দ্ধে ক্ষো’ভ প্রকাশ করেছে সুশীল সমাজ। তদ’ন্ত না করে মা’মলা রেকর্ড করায় তারা চকরিয়া থানার ওসির প্রত্যাহার ও শা’স্তির দাবি জানিয়েছে তারা। সোমবার ভোররাতে অভিযান চালিয়ে মা-মেয়েকে নি’র্যাত’নকারী সেই চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলামকে গ্রে’ফতার করেছে র‌্যাব।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চকরিয়া থানার ওসি হাবিবুর রহমানের সঙ্গে হারবাং ইউপি চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলামের ঘু’ষ বাণিজ্যের আঁ’তাত রয়েছে। ইউপি চেয়ারম্যান দাপট দেখিয়ে নি’রীহ লোকদের ওসির হাতে তুলে দিয়ে টাকা আদায় করে ভাগবা’টোয়ারা করার অভি’যোগ রয়েছে।

 

ওসি হাবিবুর রহমান ও ইন্সপেক্টর আমিনুলের বি’রু’দ্ধে ক্র’সফায়া’রের ভ’য় দেখিয়ে টাকা আদায়ে ব্যর্থ হয়ে পটিয়ার এক প্রবাসীকে গু’লি করে হ’ত্যার অভি’যোগে কয়েকদিন আগে পটিয়া আদালতে মাম’লা দায়ের হয়েছে।

 

মাম’লাটি সিআইডি তদ’ন্ত কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। ওসি হাবিবুর রহমান এরআগেও কক্সবাজার জেলায় উখিয়া থানার ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে অন্যত্র বদলি হয়ে যান। কিছুদিন যেতে না যেতেই তিনি আবারো কক্সবাজারে বদলি হয়ে আসেন।

 

গত কিছুদিন ধরে চকরিয়ায় আইনশৃ’ঙ্খলার অ’ব’নতি ঘটেছে। বৃদ্ধকে উলঙ্গ করে মা’রধ’র, চু’রি-ডা’কা’তি, মা’দক কা’রবার বৃ’দ্ধিসহ বে’আইনি কার্যকলাপ ঘটছে অ’হর’হ। আ’ইনের দৃষ্টিতেও নারীর প্রতি অ’মানবিকতা গ’র্হিত অপ’রা’ধ হওয়া সত্ত্বেও ওসি এবং আই’সি দু’স্কৃতকা’রী কাউকে গ্রে’ফতার না করে চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলামের ষ’ড়য’ন্ত্রে উল্টো মা-মেয়ে ও ছেলেকে কা’রাগা’রে পা’ঠায় পুলিশ।

 

তবে র‌্যাব সদস্যরা সোমবার ভোররা’তে অভি’যান চালিয়ে মা-মেয়েকে নি’র্যাত’নকা’রী সেই চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলামকে গ্রে’ফতার করতে সক্ষম হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *