Categories
আন্তর্জাতিক

ফেসবুকে যুবকের সঙ্গে প্রেম, মন্দিরে বিয়ে করে ২ স্বামীকে নিয়ে সংসার গৃহবধূর

সোশ্যাল মিডিয়ায় আলাপ। সেই সূত্র ধরে প্রেম, ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক। শেষমেশ বিবাহিত প্রেমিকার বাড়ি এসে হাজির প্রেমিক। তারপর মন্দিরে লুকিয়ে বিয়ের পর দুই স্বামীকে নিয়েই ওই মহিলা এক বাড়িতে থাকতে শুরু করেন বলে দাবি পাড়া প্রতিবেশীর। আরও অভিযোগ, প্রেমিকের সঙ্গে জোট বেঁধে আগের স্বামীর উপর অ’ত্যাচা’রও শুরু করে ওই মহিলা। খবর জিনিউজের।

 

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের বেহালার শিশির বাগানে। এই ঘটনায় অভি’যোগ দায়ের করেন প্রথম স্বামী মনোজিৎ দাস। অভিযো’গের ভিত্তিতে অভি’যুক্ত প্রেমিক পরিতোষ মণ্ডলকে আ’টক করেছে বেহালা থানার পুলিশ। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চ’ল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

বেহালার শিশিরবাগানের গৃহবধূ সোমা দাসের সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় আলাপ হয় কোচবিহারের যুবক পরিতোষ মণ্ডলের। আলাপ থেকে প্রেম। ঘনি’ষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে ওঠে যুগলের মধ্যে। এরপরই কোচবিহার থেকে সোজা শিশিরবাগানে সোমা দাসের বাড়িতে এসে হাজির হয় পরিতোষ মণ্ডল নামে ওই যুবক।

 

অভি’যোগ, তারপর থেকেই যুগলে মিলে প্রথম স্বামী মনোজিৎ দাসের উপর অ’ত্যা’চার শুরু করে। নানাভাবে মান’সিক নি’র্যা’তন করা হয়। এলাকাবাসী জানিয়েছে ওই দম্পতির ১৬ বছরের এক পুত্রসন্তান আছে। এদিকে ওই মহিলা গত পরশু কৌশিকী আমাবস্যার দিনে বাড়ির পাশেই এক মন্দিরে প্রেমিক কোচবিহারের যুবককে বিয়ে করেন বলে অভি’যোগ।

আরও অভি’যোগ, বিয়ে করে দ্বিতীয় স্বামীকে নিয়ে একইসঙ্গে ঘরে থাকতেও শুরু করেন সোমা দাস নামে ওই মহিলা। তার সঙ্গে প্রতিদিন চলতে থাকে প্রথম স্বামী মনোজিৎ দাসের উপর অ’ত্যা’চার। অবশেষে আজ প্রেমিক পরিতোষ মণ্ডলকে আ’টক করে পুলিশের হাতে তুলে দেন স্থানীয়রা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *