Categories
জাতীয়

শিপ্রার ভিডিও দেখে অবাক ড.আসিফ নজরুল!

কক্সবাজারের মেরিনড্রাইভে পুলিশের গু’লিতে নি’হত অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহার সহযো’গী স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শিপ্রা দেবনাথের সাম্প্রতিক কিছু ভিডিও ও ছবি নিয়ে সমা’লোচনার ঝড় শুরু হয়েছে সামাজিক মাধ্যমে। শিপ্রার বক্তব্য নিয়ে অনেকেই ক্ষো’ভ ঝেড়েছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড.আসিফ নজরুল শিপ্রার ভিডিওটি দেখে ‘হতভম্ব’ হয়েছেন বলে জানিয়েছেন একটি ফেসবুক স্ট্যাটাসে।

 

ড. আসিফ নজরুল তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে স্ট্যাটাসে বলেন, ‘মেজর সিনহার হ’ত্যাকা’ণ্ডের পর শিপ্রা দেবনাথের একটি ভিডিও দেখে হতভ’ম্ব হয়ে গেছি। মনে হয়েছে অবস’রপ্রাপ্ত মেজর সিনহার হ’ত্যার বি’চার না, শিপ্রার আসল চিন্তা ইউটিউব চ্যানেলের উপর নিয়’ন্ত্রণ নিয়ে। মেয়েটি সেখানে যেভাবে বলল সিনহা ‘মা’রা গেছে’ মনে হলো যেন তাকে কেউ হ’ত্যা করেনি, পাহাড়-টাহার থেকে দু’র্ঘ’টনাব’শত পড়ে মৃ’ত্যুটি ঘটেছে!

 

তার সাথে সিনহার যতো অ’ন্তর’ঙ্গ সম্পর্ক থাকুক না কেন, পাবলিকলি সে যেভাবে সিনহা, সিনহা বলে তাকে উল্লেখ করেছে তা অত্য’ন্ত অ’রুচিকর লেগেছে আমার কাছে। আর এত ঘনি’ষ্ঠ যদি হয় তাদের সম্পর্ক, তাহলে তার ম’র্মান্তি’ক হ’ত্যাকা’ন্ডের পর শিপ্রার আ’চার-আচরণ তো সন্দে’হজনক বলতে হবে! পুরো ভিডিওটা দেখে আমি এমন বির’ক্ত হয়েছি যে তা বলার মতো না। কি দুর্ভাগ্য, মেজর সিনহা এমন একটা আজব সহকর্মী রেখে গেছেন তার সম্পর্কে বলার জন্য।’

 

গত ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফ বাহারছড়া চেকপো’স্টে ত’ল্লা’শির সময় পুলিশের গু’লিতে নি’হত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে টেকনাফ থানায় হ’ত্যা ও মা’দ’ক আ’ইনে এবং রামু থানায় মা’দ’ক আইনে পৃথক ৩টি মা’মলা’ দায়ের করে। এ মা’ম’লায় নিহ’ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খানের সঙ্গে থাকা শাহেদুল ইসলাম সিফাত ও শিপ্রা রানী দেব নাথকে গ্রে’ফতার দেখিয়ে কা’রাগারে পাঠায় পুলিশ।

 

৫ আগস্ট নি’হত সিনহার বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস বাদী হয়ে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ইন্সপেক্টর লিয়াকত, ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ৯ জনের বিরু’দ্ধে হ’ত্যা মা’ম’লা দা’য়ের করেন। ৬ আগস্ট বরখা’স্ত ওসি প্রদীপ ও লিয়াকতসহ ৭ আ’সামি কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল আ’দালতে আ’ত্মসম’র্পণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *