Categories
জাতীয়

কারাগারে থাকলেও ফেসবুকে ‘অ্যাকটিভ’ ইন্সপেক্টর লিয়াকত!

সাবেক মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানকে গু’লি করে হ’ত্যার অভি’যোগে কা’রাগারে আছেন পুলিশের পরিদর্শক লিয়াকত আলী। অথচ ‘অ্যাকটিভ’ দেখাচ্ছে তার ফেসবুক আইডি। মঙ্গলবার রাতেও ফেসবুক মেসেঞ্জারে তার আইডি অনলাইন পাওয়া যায়। এমনকি গত ৬ আগস্ট আদালত থেকে কা’রাগারে যাওয়ার দিনও তার আইডির ‘প্রোফাইল পিকচার’ পরিবর্তন করা হয়েছে।

 

গত ৫ আগস্ট নি’হত সিনহার বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস বাদী হয়ে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ লিয়াকত, ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ৯ জনের বিরু’দ্ধে হ’ত্যা মা’মলা দা’য়ের করেন। ৬ আগস্ট বরখা’স্ত ওসি প্রদীপ ও লিয়াকতসহ ৭ আ’সামি কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল আদালতে আ’ত্মসম’র্প’ণ করেন।

 

মাম’লার শুনানিতে র‌্যাবের পক্ষে প্রত্যেক আসা’মির ১০ দিন করে রি’মা’ন্ডের আবে’দন করা হয়। আ’দালত ইন্সপেক্টর লিয়াকত, ওসি প্রদীপ এবং এস আই নন্দ দুলাল র’ক্ষিতের ৭ দিন করে রিমা’ন্ড ম’ঞ্জুর করেন। বাকি ৪ জনকে কা’রাফটকে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেন। বাকি দুই আসা’মির বিরু’দ্ধে গ্রে’ফতারি পরো’য়ানা জা’রি করেন আ’দালত। ৪ জনকে কা’রাফটকে দুদিন করে জিজ্ঞাসাবাদ সম্পন্ন করে র‌্যাব। গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া তাদের ১০ দিনের রি’মান্ড চাওয়া হয়েছে।

 

এদিকে, সিনহার পরিবারের করা হ’ত্যা মা’মলার প্রধান আ’সামি বাহারছড়া পুলিশ তদ’ন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ লিয়াকত, টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ, এস আই নন্দ দুলাল র’ক্ষিতকে এখনও র‌্যা’বের হেফাজতে নেওয়া হয়নি। যেকোনো সময় তাদের র‌্যাবের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে।

 

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (৩১ আগস্ট) রাত সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গু’লিতে নি’হত হন মেজর সিনহা রাশেদ খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *