Categories
বিনোদন

মৌসুমীই আমার জীবনের সব: ওমর সানী

জনপ্রিয় তারকা দম্পতি ওমর সানী-মৌসুমী। জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন বহু ব্যবসাসফল চলচ্চিত্রে। তারপর প্রেম-বিয়ে, সংসার ও সন্তান। আজ তাঁদের ২৫তম বিবাহবার্ষিকী। ১৯৯৫ সালের ২ আগস্ট ভালোবেসে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন ওমর সানী ও মৌসুমী। আজ তাঁদের বিবাহবার্ষিকীর রজতজয়ন্তী।

 

দিনটি বিশেষভাবে উদযাপনের ভাবনা ছিল এ দম্পতির। বধূবেশে হাজির হবেন মৌসুমী, শেরওয়ানি পরে বর সাজবেন ওমর সানী। এফডিসিতে সেট নির্মাণ হবে। সেখানে বিবাহের রজতজয়ন্তী পালন হবে। এমনই পরিকল্পনা ছিল তাঁদের। তবে করোনার কারণে এ বছর তাঁদের কোনো আয়োজন নেই।আক্ষেপ করে ফেসবুক হ্যান্ডেলে স্ট্যাটাস দিয়েছেন ওমর সানী। ভক্তদের কাছে দোয়াও চেয়েছেন এ চিত্রনায়ক।

 

এনটিভি অনলাইনকে সানী বলেন, ‘চারদিকে কাছের মানুষগুলো চলে যাচ্ছে। করোনার পাশাপাশি দেশের মানুষ এখন বন্যার কবলে পড়েছে। এমন সময় কোনো অনুষ্ঠান করার চিন্তা নেই। সবাই ফোন করে উইশ করছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় আমাদের জন্য দোয়া করছে, এর চেয়ে বেশি কী-বা আশা করতে পারি।’তবে সানী-মৌসুমীর ছেলে ফারদিন গতরাতেই বন্ধুদের নিয়ে মা-বাবার জন্য কেক কেটেছেন। মা-বাবার জন্য এটা সারপ্রাইজ ছিল।

 

সানী বলেন, ‘রাত ১২টার আগে হঠাৎ দেখি ছেলের ১৫-২০ জন বন্ধু বাসায় এসে উপস্থিত। চিন্তায় পড়ে গিয়েছিলাম, তাদের এত রাতে কী খাওয়াব। পরে দেখি ফারদিন আগে থেকে সব রেডি করে রেখেছিল। মা-বাবার জন্য এটা ছিল তার সারপ্রাইজ।’মৌসুমীকে নিয়ে সানী বলেন, ‘মৌসুমী একজন পরিপূর্ণ মানুষ। সে যেমন নায়িকা, তেমনি স্ত্রী-মা হিসেবেও অসাধারণ। বাবার বাড়ি বা শ্বশুরবাড়ির প্রত্যেক সদস্যের খবর রাখে সে। সবার সুখ-দুঃখের অংশীদার হয়। সমাজসেবক হিসেবেও সে সফল মানুষ। আমার সুখে-দুঃখে পথচলার সঙ্গী, এককথায় মৌসুমীই আমার জীবনের সব।’

 

মৌসুমী বলেন, ‘বাবার মৃত্যুর পর থেকেই সানী আমাদের পুরো পরিবারে ভূমিকা রেখে আসছে। সব মানুষকেই আপন করে নেওয়ার একটি অসাধারণ ক্ষমতা রয়েছে তাঁর। সব সময় সব কাজে সে আমাকে সহযোগিতা করে। তার সহযোগিতা আমার জন্য অনুপ্রেরণা হয়ে কাজ করছে। আসলেই অনেক ভালো একজন মানুষ সানী। আপনারা আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

ওমর সানী-মৌসুমীর সুখের সংসার আলোকিত করে দুই সন্তান এসেছে, পুত্র ফারদিন ও কন্যা ফাইজা। ফারদিন রাজধানীর উত্তরায় ‘মেরিমন্টানা’ নামে একটি রেস্টুরেন্ট পরিচালনা করছেন। রেস্টুরেন্ট ব্যবসায় পুত্রের সাফল্যে বেশ আনন্দিত মৌসুমী-ওমর সানী। পাশাপাশি ফারদিন নির্মাতা হিসেবেও কাজ করেন।

 

১৯৯৪ সালের ২ ডিসেম্বর অগ্রগামী চলচ্চিত্র প্রযোজিত, দীলিপ সোম পরিচালিত ‘দোলা’ ছবির মাধ্যমে প্রথম জুটি বাঁধেন ওমর সানী ও মৌসুমী। ‘দোলা’ ছাড়াও ‘আত্ম অহংকার’, ‘প্রথম প্রেম’, ‘মুক্তির সংগ্রাম’, ‘হারানো প্রেম’, ‘গরিবের রানি’, ‘প্রিয় তুমি’, ‘সুখের স্বর্গ’, ‘মিথ্যা অহংকার’, ‘ঘাত প্রতিঘাত’, ‘লজ্জা’, ‘কথা দাও’, ‘স্নেহের বাঁধন’, ‘সাহেব নামে গোলাম’সহ আরো বেশ কিছু ব্যবসাসফল চলচ্চিত্রে জুটি হিসেবে কাজ করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *