Categories
জাতীয়

মুখোমুখি হওয়ার পর যা বললেন সাবরিনা-সাহেদ

রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. সাহেদ ওরফে সাহেদ করিম এবং করোনা টেস্ট জালিয়াতির ঘটনায় জড়িত থাকা জেকেজি চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরীকে মুখোমুখি জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

 

দু’জনের অপরাধ অভিন্ন বলে তাদের মুখোমুখি করা হয়েছে বলে জানায় ডিবি পুলিশ। তবে জিজ্ঞাসাবাদে তারা একে অপরকে চেনেন না বলে দাবি করেন। যদিও ডিবি বলছে, তারা যে পূর্ব পরিচিত সেই তথ্য ডিবির হাতে রয়েছে।

 

 

মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) আবদুল বাতেন জানিয়েছেন, গত শনিবার সাবরিনা ও সাহেদকে কিছুক্ষণের জন্য মুখোমুখি করা হয়েছিল। তখন দু’জন দু’জনকে চেনেন না বলে দাবি করেছেন। তবে তদন্ত সংস্থার কাছে তথ্য আছে- তারা পূর্ব পরিচিত।

 

করোনার ভুয়া সনদ বিক্রির মামলায় পুলিশ গত ২৩ জুন জেকেজির প্রধান নির্বাহী আরিফসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে। ১২ জুলাই গ্রেপ্তার করা হয় ডা. সাবরিনাকে। বর্তমানে মামলাটি ডিবির তেজগাঁও বিভাগ তদন্ত করছে।

 

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) তেজগাঁও বিভাগের ডিসি গোলাম মোস্তফা রাসেল একটি জাতীয় দৈনিককে বলেন, ‘চার দিনের রিমান্ডের মেয়াদ শেষ হওয়ায় রোববার আরিফকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সোমবার সাবরিনাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *