Categories
জাতীয়

আয়াসোফিয়াকে মসজিদে রূপান্তরের রায়ে কক্সবাজারে পশু কুরবানী করে আনন্দ উদযাপন

প্রায় পাঁচশত বছরের স্মৃতি বিজড়িত ঐতিহাসিক আয়াসোফিয়া মসজিদকে ইবাদাতের জন্য জাদুঘর থেকে পুনরায় মসজিদে রূপান্তর করণে তুরস্কের শীর্ষ আদালতের রায়ে আনন্দ উদযাপন করেছেন বাংলাদেশ ও আরকানের ছাত্ররা ।শুক্রবার (১৭ জুলাই) কক্সবাজার জেলায় এই রায়ের আনন্দ উদযাপিত হয়।

 

তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা আনাদোলুর তথ্যমতে, এই সকল ছাত্রদের সকলেই কক্সবাজার জেলায় অবস্থিত ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জামিয়া দারুল উলুম চাকমারকুল মাদরাসায় সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশে অধ্যয়নরত বাঙালি ও আরকানী মুসলিম।

 

আয়াসোফিয়া পুনরায় মসজিদ রূপে ফিরে আসায় এই শিক্ষার্থীরা মহান আল্লাহর প্রশংসা ও শুকরিয়া জ্ঞাপনের মাধ্যমে নিজেদের আনন্দ উদযাপন করেছে।এছাড়াও, বাংলাদেশে কর্মরত রেইসার্স অফ গুড ডিডস নামক তুর্কী এসোসিয়েশন মহান আল্লাহর প্রতি শুকরিয়া স্বরূপ একটি পশু কোরবানি করেছে।

 

এসোসিয়েশনটির একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আওনার আনাদোলুকে জানান, আয়াসোফিয়ার মসজিদ রূপে প্রত্যাবর্তনের খবর সম্বন্ধে বাংলাদেশের মানুষ অবগত আছে।তুরস্ক ইতোপূর্বে বাঙালি ও আরকানীদের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন, বাঙালি ও আরকানীরা তুরস্কের কাছে অপরিচিত নয়। তাই তারা এখন তাদের আনন্দে অংশগ্রহণ করতে চাইছে, বিশেষত আয়াসোফিয়া মসজিদ হিসেবে ফিরে আসার আনন্দে।সূত্র:আনাদোলু এজেন্সি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *