Categories
বিনোদন

চেক জালিয়াতির অভিযোগে ফেঁসে যাচ্ছেন নায়িকা অপু বিশ্বাস!

বাদশাহ বুলবুলের এবি ইন্টারন্যাশনাল এর পক্ষ থেকে নায়িকা অ’পু বিশ্বা’সকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে। জানা যায়, লিগ্যাল নোটিশে ১০ লাখ টাকার চেক জালিয়াতির অ’ভিযোগ আনা হয়েছে। অবশ্য অ’পু বিশ্বা’স বলেছেন, তিনি মানহানি মা’মলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তিনি কোন চেক জালিয়াতি করেননি।

 

অ’পু বিশ্বা’স বলেন, আমি তার সঙ্গে মাস ছয়েক আগে ব্যবসা শুরু করি। আমা’র গ্রামের বাড়ি থেকে কিছু সম্পত্তি বিক্রী করে ৫০ লক্ষ টাকার মতো দেই।কিন্তু মাস তিনেক পর তার ব্যবহার আমা’র সুবিধার মনে হয়নি। তখন আমি নিজে ব্যবসা থেকে সরে আসি।

 

তখন আমি ওনাকে বলি যে আমি আর ব্যবসা করতে চাচ্ছি না। আমা’র টাকাগুলো ফেরত দেন আস্তে আস্তে। তখন উনি বিভিন্নভাবে আমাকে ম্যানেজ করার চেষ্টা করেন। কিন্তু আমি আর রাজি হইনি। আমি টাকা চেয়েছি।তিনি বলেন, গেল কিছুদিন ধরে উনি উল্টো বলছে আমি ওনাকে টাকা দেইনি, আমি ওনাকে ভু’য়া চেক দিয়েছি।

 

এর মধ্যে গতকাল উনি আমা’র বাসার সামনে এসে বিভিন্ন অ্যাঙ্গেলে আমা’র বাসার ছবি তুলে নেয়। রাতে তিনি থা’নায় গিয়ে জিডি করেন। যদিও আমি এখনো হাতে কোন লিগ্যাল নোটিশ বা জিডির কপি পাইনি।অ’পু বিশ্বা’স বলেন, আমি যখন ব্যবসা করতাম। তখন অফিসে আমা’র একটা রুম ছিলো। সেই রুমেই আমা’র চেকসহ আরও কিছু কাগজপত্র ছিলো।

 

উনি যেহেতু আমা’র পার্টনার, ওনারও একসেস ছিলো সেখানে। সেভাবে উনি হয়তো কোনভাবে আমা’র চেক নিয়ে নিয়েছেন।আমি এতকিছু বুঝিওনি। আর উনি আমাকে ব্লাকমেইল করার টেকনিক অনেক আগেই নিয়েছিলেন সেটা এখন বুঝতে পারছি।

 

উনি আমাকে নানা ভ’য়ভীতি দেখিয়ে টাকা’টা আত্নসাত করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু যখন দেখলো কোন কিছুতে কাজ হচ্ছে না, তখন এই উপায় নিলো। সুত্রঃ কালের কন্ঠ। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *