কুয়েতে আরও বাংলাদেশী জনশক্তি রপ্তানি করতে প্রস্তুত

কুয়েতে আরও বাংলাদেশী জনশক্তি রপ্তানি করতে প্রস্তুত

কুয়েতে আরও বাংলাদেশী জনশক্তি রপ্তানি করতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন দেশটির বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল আশিকুজ্জামান। সম্প্রতি বাংলাদেশ দূতাবাসে, কুয়েত জনশক্তি, মন্ত্রনলায়ের মহাপরিচালক ড. মোবারক আল আজমী ও তার প্রতিনিধিদলের সাথে একান্ত সাক্ষাৎকারে বলেন, তার দেশ বাংলাদেশ কুয়েত রাজ্যে জনশক্তি, বা জনবল দিতে সব সময় প্রস্তুত রয়েছে এবং বাংলাদেশী শ্রমিক নিয়োগে সব ধরনের সুযোগ সুবিধা প্রদান করার কথা আশাবাদ ব্যক্ত করেন। দেশটির স্হানীয় দৈনিক আল কাবাস এ তথ্য জানিয়েছে।

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল আশিকুজ্জামান, তার দেশ থেকে অধিক জনশক্তি, কর্মী নিয়োগে দুই দেশের আগ্রহের ওপর জোর দেন এবং শ্রমিক নিয়োগে বাংলাদেশের শতাংশ বৃদ্ধি করার কথাও জানান। অপর দিকে কুয়েত জনশক্তি মন্ত্রনলায়ের প্রতিনিধি দল, কুয়েত ও বাংলাদেশের দীর্ঘ ঐতিহাসিক সম্পর্কের প্রশংসা করে সম্পর্ক আরো জোরদার করার অঙ্গীকার নিশ্চিত করেন।

আরোও পড়ুনঃ কুয়েতে বাংলাদেশিরা পেতে যাচ্ছেন এনআইডি
কুয়েত প্রবাসীদের দীর্ঘদিনের দাবি স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি কার্ড) যেটার মাধ্যমে প্রবাসীরা ২২ টি নাগরিক সেবা গ্রহণ করতে পারেন। কুয়েত প্রবাসীদের সেই স্বপ্ন পূরণ হতে চলছে। কুয়েতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের এই বহুল প্রত্যাশিত স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদানের লক্ষে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন নীতিগত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।
বাংলাদেশ দূতাবাস কুয়েতের ফেসবুক পেজে প্রথম সচিস দূতালয় প্রধান নিয়াজ মোর্শেদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, দূতাবাসের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবং বাংলদেশ হতে আগত নির্বাচন কমিশনে রেজিস্ট্রেশন টিম এনআইডি প্রদান সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করবে। বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন রেজিস্ট্রেশন টিম তিন সপ্তাহ অবস্থান করবে কুয়েতে। যে সকল কুয়েত প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তারা অনলাইন ও অফলাইন দুইভাবে আবেদন করার সুযোগ রয়েছে। বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে আবেদন করতে পারবেন।

দূতাবাসে অফিস সময়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও তথ্যাদি দিয়ে ফরম পূরণের মাধ্যমেও আবেদন করতে পারবেন। অনলাইন ও অফলাইনের মাধ্যমে স্মার্ট জাতীয় পরিচয় পত্রের আবেদনে ক্ষেত্রে যে সকল কাগজপত্র লাগবে তাহল অনলাইন জন্ম সনদ কপি,বৈধ বাংলাদেশি পাসপোর্ট কপি, ইউনিয়ন অথবা পৌরসভার হতে নাগরিক সনদ, ইউটিলিটি বিলের কপি ( বিদ্যুৎ,গ্যাস,পানি,টেলিফোন ) বিলের কপি, শিক্ষাগত যোগ্যতা সনদ যদি থাকে।
পিতা,মাতা,স্বামী,স্ত্রী এর জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর। স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র প্রাপ্তির জন্য আবেদনকারীর নামের তালিকা দূতাবাসের ফেসবুক পেজ ও ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে।

এছাড়াও কুয়েতে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের কি পরিমাণ জাতীয় পরিচয় পত্র প্রয়োজন তা নির্ধারনের জন্য দূতাবাস অনলাইন নিবন্ধন প্রদক্ষেপ গ্রহন করেছে। এ বিষয়ে কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশিকুজ্জামান জানান,
স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য এনআইডি অত্যন্ত জরুরি। এনআইডি পেলে প্রবাসীরা ২২টি নাগরিক সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। সব কিছু ঠিক থাকলে সেপ্টেম্বর এনআইডি কার্যক্রম শুরু করতে পারবে বলেন জানান রাষ্ট্রদূত।

তিনি আরও জানান, আবেদন প্রক্রিয়া অনলাইন ও অফলাইন দুই ভাবে করা যাবে। আবেদেনের তালিকা অনুসারে এনআইডি প্রদান কার্যক্রম চলবে। প্রবাসীদেরকে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান করতে বাংলাদেশ দূতাবাস ইতোমধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। সম্প্রতি কুয়েত দূতাবাস কর্তৃক ‘এনআইডি’ প্রত্যাশীদের জন্য নিবন্ধন প্রক্রিয়ার একটি বিজ্ঞপ্তি দেখে উচ্ছ্বসিত হয়েছেন প্রবাসীরা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2022 Jonotaralo
Design BY NewsTheme