গৃহকর্মী ছাড়া ৬ মাসের বেশি ছুটি কাটাতে পারবেন কুয়েত প্রবাসীরা

গৃহকর্মী ছাড়া ৬ মাসের বেশি ছুটি কাটাতে পারবেন কুয়েত প্রবাসীরা

ক’রোনা মহামারি পরবর্তীকালে কুয়েত প্রবাসীদের জীবন আরও সুন্দর ও স’হজ করতে উ’দ্যোগ নিয়েছে সে দেশের সরকার। এখন থেকে স্টুডেন্ট ভিসা, প্রবাসী বা ডিপেনডেন্সি ভিসায় দেশটিতে অবস্থানকারীরা ছয় মাসের বেশি সময় কু’য়েতের বাইরে থা’কতে পা’রবেন। এটি ইকামা বা ওয়ার্ক পারমিটধারীদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হিসেবে গণ্য হবে।

তবে কুয়েতে গৃহকর্মী ভিসায় থাকা কোনো প্রবাসী এ সুযোগ পাবেন না। এক্ষেত্রে যদি কোনো প্রবাসী গৃহক’র্মী ছয় মাসের বেশি কুয়েতের বাইরে থাকেন তবে তাদের স্পনসরদের নির্ধারিত চুক্তিতে সই করতে হবে। অন্যথায় তাদের রেসিডেন্সি পারমিট বা কুয়েতে বসবাসের অনু’মোদন বাতিল করা হবে। খবর কুয়েত টাইমসের।

বৈশ্বিক করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘদিন কুয়েতের সঙ্গে বিভিন্ন দেশের বিমান চলাচল বন্ধ থাকায় দেশটিতে থাকা প্রবাসীরা ছুটি কা’টাতে পারছেন না। ফলে কুয়েত সরকার এবার সেইসব প্রবাসীদের ছয় মাসের বেশি বাইরে থাকার অনুমতি দিচ্ছে।

ইকামা বা ওয়ার্ক পা’রমিটধারী প্রবা’সীদের ছয় মাসের বেশি কুয়েতের বাইরে থাকার অনুমতি দেওয়ার সর’কারি সিদ্ধান্ত এখনো ব’লবৎ রয়েছে। এ’খন পর্যন্ত এ নিয়ম বাতিল করা হয়নি। সূত্র বলেছে, শুধুমাত্র গৃহকর্মীদের ছয় মাসের বেশি কুয়েতের বাইরে থাকার অনু’মতি দেওয়া হয়নি, যদি না তা’দের পৃষ্ঠপোষক বা স্প’নসর তাদের পক্ষে সরকারের কাছে আবেদন করে।

কুয়েতের বাইরে থাকাকালীন প্রবাসীরা তাদের রেসিডেন্সি পারমিট নবায়ন করতে পারবেন। ছয় মাস আগে চা’লু হওয়া প্রবা’সীদের অনলাইনে তাদের ই’কামা নবায়ন করার অনুমতি এখনো কার্যকর রয়েছে। গৃহকর্মী ব্যতীত ছয় মাসের বেশি কুয়েতের বাইরে থাকা প্রবাসীদের রেসি’ডেন্সি বা’তিল করা হবে না।

কুয়েত সরকারের এ সিদ্ধান্ত পরবর্তী ঘোষণা না হওয়া পর্যন্ত বৈধ থাকবে। কোভিড মহামারি চলাকালীন আন্ত’র্জাতিক রুটে বিমান চা’লাচল বন্ধ বা সী’মিত থাকায় কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রবাসীদের জন্য এ ছাড় দিয়েছিল। বর্তমানে কুয়েত ধীরে ধীরে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসেছে। সর’কারি ও বেস’রকারি খাতের প্র’তিষ্ঠানগুলোও চালু রয়েছে।

এদিকে কুয়ে’তে ভ্রমণ ভি’সা এখ’নো চালু হয়নি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় চলতি বছ’রের শেষ নাগাদ ফ্যামিলি ভিসা ইস্যু বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়ে’ছে। মন্ত্র’ণালয় বলেছে, রাষ্ট্রের নিরাপত্তা ও সং’সদ নি’র্বাচন মন্ত্র’ণালয়ের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অক্টো’বরের শুরুতে নতুন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনের পর নতুন সর’কার গঠ’ন হলে ভ্রমণ ভিসা চালু হওয়ার স’ম্ভাবনা রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2022 Jonotaralo
Design BY NewsTheme