কুয়েতে পার্টটাইম কাজের সুযোগ পাচ্ছেন প্রাইভেট কোম্পানির কর্মীরা

কুয়েতে বসবাসরত প্রাইভেট কোম্পানির কর্মীদের জন্য পার্টটাইম কাজের সুযোগ দিয়েছে দেশটির সরকার। যা এই জানুয়ারি থেকে কার্যকর হতে যাচ্ছে। তবে এ সুবিধা ঠিক কারা পাবেন তা উল্লেখ করেনি কর্তৃপক্ষ। তবে প্রবাসী বাংলাদেশিরা মনে করছেন তারাও এই সুযোগ পাবেন। তবে এই সুযোগের আওতায় আখোদ বা সরকারী প্রজেক্ট ভিসায় যারা গিয়েছেন তারা এই সুযোগ নাও পেতে পারেন।

কুয়েতের প্রথম উপ-প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ তালাল আল খালেদ মূল নিয়োগকর্তার অনুমোদন নিয়ে তৃতীয় পক্ষের সঙ্গে খণ্ডকালীন চাকরির অনুমতি দিয়ে এ সিদ্ধান্ত জারি করেন।

সরকারের নেওয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কর্মীরা সর্বোচ্চ চার ঘণ্টা কাজ করতে পারবেন। যদি তারা মূল নিয়োগক্রিত কোম্পানির কাছ থেকে একটি সাময়িক কাজের অনুমতি পান। তবে এটি শুধুমাত্র বেসরকারি খাতে যারা কাজ করেন তাদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।

স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, কুয়েতের মধ্যে বিদ্যমান কর্মশক্তিকে ব্যবহার করতে, জনসংখ্যাগত ভারসাম্যহীনতা মোকাবিলায় এবং বর্তমান শ্রমবাজারের চাহিদা পূরণে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়।

কুয়েতে পার্টটাইম কাজ শ্রম আইনের লঙ্ঘন। করোনার পর থেকে আবাসিক ও শ্রম আইন লঙ্ঘনের কারণে কুয়েতে প্রতিনিয়ত আটক হচ্ছেন প্রবাসীরা। একদিন আগেও গ্রেফতার হয়েছেন ৫৭৫ জন প্রবাসী।

Author: ja

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *