যে কারণে ড্রোন উড়ানো নিষিদ্ধ করতে বাধ্য হলো আরব আমিরাত

যে কারণে ড্রোন উড়ানো নিষিদ্ধ করতে বাধ্য হলো আরব আমিরাত

ই’য়েমেনের হু’থি আন”সা’রুল্লা’হ যো”দ্ধা’দে’র ড্রো’ন হা’ম”লার ভয়ে নিজ ভূ’মিতে যে’কোনো ধরনের ড্রো’ন চালানো নি”ষিদ্ধ করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। এ অবস্থায় কুয়েত সরকার আরব আমিরাত সফররত নিজ দেশের নাগরিকদের দূর নিয়ন্ত্রিত পাইল’টবিহীন বিমান বা ড্রোন ব্যবহার করার ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছে।

আবু ধাবির কুয়েত দূতাবাস আরব আমিরাত সফরকারী কুয়েতি নাগরিকদেরকে যেকোনো ধরনের ড্রোন সাথে রাখার ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, সাথে ড্রোন থাকলে আরব আমিরাতে কুয়েতি নাগরিকদের ‘আইনি জটি”’ল’তায় পড়তে হবে।

ইয়েমেনের ওপর সৌদি আ”গ্রা সনে সহযোগিতা করার কারণে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বি”রুদ্ধে ক্ষিপ্ত ইয়েমেনের সেনাবাহিনী। ওই বাহিনী এ পর্যন্ত বেশ কয়েকবার আরব আমিরাতে ড্রো”ন পাঠিয়ে হা’ম লা চালিয়েছে।

ইয়েমেনের হুথি আনসা রু’ল্লাহ আন্দোলনের পলিটব্যুরো সদস্য মোহাম্মাদ আল-বুখাইতি এ সম্পর্কে বলেছেন, সৌদি আরব ও আরব আমিরাতের মধ্যে এমন একটি সমঝোতা হয়েছে যে সৌদি আরব ইয়েমেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশগুলোকে আমিরাতের হাতে তু’লে দেবে এবং এর বি’নিময়ে আ’মিরাত ইয়েমেনে তার সমরশক্তি দিয়ে রি’য়াদকে সহযোগিতা করবে।

বুখাইতি সংযুক্ত আরব আমিরাতকে স’তর্ক করে দিয়ে বলেন, দেশটি যেন উত্তে’জনা বাড়িয়ে দেয়ার যে’কোনো পদক্ষেপ থেকে বিরত থাকে। কারণ, সেক্ষেত্রে আরব আমিরাতের গভীর অ”ভ্য’ন্ত’রে হা ম লা চালাবে ইয়েমেন।
সূত্র : পার্সটুডে

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2022 Jonotaralo
Design BY NewsTheme